Home / কবুতর পালন পদ্ধতি / কবুতর পালনে প্রাথমিক ধারণা- ১ম পর্ব
কবুতর পালন ও চিকিৎসা
কবুতর পালন ও চিকিৎসা

কবুতর পালনে প্রাথমিক ধারণা- ১ম পর্ব

আসসালামুওয়ালাইকুম কবুতর প্রেমি ভাই, বোন এবং বন্ধুগণ। আশা করি সকলেই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি। আজকের আলোচনা তাদের জন্য যারা নতুন করে কবুতর পালন করতে চান। তবে যারা পুরাতন কবুতর পালক আছেন তারাও সম্পূর্ণ পোস্ট পড়তে পারেন, এতে আপনাদেরও হয়তো নতুন কোনো বিষয় জানা হবে। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় হলো- কবুতর পালনে প্রাথমিক ধারণা অর্থাৎ কবুতর পালন শুরু করবেন কিভাবে সে বিষয় নিয়ে আলেচনা করবো।

১ম পর্বে আলোচনা করবো কবুতরের বাসস্থান ও কবুতর নির্বাচন নিয়ে।

কবুতরের বাসস্থানঃ প্রথমেই আলোচনা করছি কবুতরের বাসস্থান নিয়ে। কবুতরের বাসস্থান এমন জায়গায় তৈরি করতে হবে যেখানে কাক, বিড়াল, বৃষ্টির পানি না আসতে পারে। কবুতরের বাসস্থান তৈরির জন্য এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বাড়ির ছাদে বা দেয়ালে কবুতরের জন্য থাকার ঘর তৈরি করতে পারেন। আপনি নিজে অথবা মিশ্ত্রী দ্বারা কাঠ দিয়ে ছোট ছোট বক্স বানিয়ে নিতে পারেন।মনে রাখবেন প্রতি জোড়া কবুতরের জন্য ২ টি ঘর দরকার হয়। এর কারণ হলো- অনেক কবুতর আছে যারা বাচ্চা থাকা অবস্থায় আবার ডিম দিয়ে দেয়।




তাই ২ টি ঘর দরকার হয়। প্রতিটি ঘরের মাপ বেশ বড় রাখবেন। সকল ঘরের সামনে প্রশস্ত ল্যান্ডিং স্পট রাখবেন অর্থাৎ কবুতর যেন উড়ে এসে তার বাসার সামনে এসে দাড়াতে পারে এমন ব্যবস্থা রাখবেন। প্রতি ২ টা ঘর পরপর ল্যান্ডিং স্পটের উপরে একটি বেরিকেট অর্থাৎ বেরা দিয়ে দিবেন যাতে পাশাপাশি কবুতর জোড়ার মধ্যে ঝগড়া না হয়। তবে সবচেয়ে ভালো হয় কবুতরের জন্য আলাদা বড় একটা ঘর তৈরি করা। ঘরটি বাড়ির ছাদেও হতে পারে আবার বাড়ির সামনেও হতে পারে। ঘরে ঢালাই ছাদ দিলে সবচেয়ে ভালো। এছাড়া সিমেন্টের টিন বা টালি দেওয়া যেতে পারে। যাতে ঘরের ভেতর সূর্যের তাপ খুব বেশি না হয়। টিনের মধ্যে একটি নীল স্বচ্ছ টিন দিবেন এতে ঘরে আলো বাতাস আসবে ভালো। ঘরের ভিতর পর্যাপ্ত আলো বাতাস যেন চলাচল করতে পারে সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। সেজন্য ঘরের মধ্যে বড় ২ টি জানালা রাখবেন। জানালায় নেট দিয়ে বেড়া দিয়ে রাখবেন যাতে বিড়াল বা কাক ঘরে প্রবেশ করতে না পারে। এটা ছাড়াও ঘরের উপর চার দেয়ালেই ভেন্টিলেটর দিবেন। আমরা বেশিরভাগ সময় কবুতরের ঘর স্বাস্থ্যসম্মত করতে পারিনা বলে খুব সহজে কবুতর রোগে আক্রান্ত হয়। যারা গ্রামে থাকেন তারা অবশ্যই এই রকম বড় ঘরের মধ্যে কবুতর পালন করবেন। কেননা গ্রামে অনেক অসৎ চাষি জমিতে গম ও সরিষা লাগানোর সময় বীজে বিষ মেশান। যা খেয়ে কবুতর মারা যায়। এই সময় কবুতরকে নিরাপদ রাখার জন্য কবুতর ছেড়ে দেওয়া যাবে না। ঘর নির্বাচন মুটামুটি শেষ আশা করি ঘর নির্বাচন নিয়ে একটা ধারণা পেয়েছেন। একন চলুন কবুতর নির্বাচন নিয়ে আলোচনা করি

কবুতর নির্বাচনঃ কবুতর পালনে কবুতর নির্বাচন এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এখন প্রশ্ন হলো- প্রাথমিক অবস্থায় কেমন কবুতর নির্বাচন করবো? হ্যা বন্ধুগণ! আপনি যেহেতু কবুতর পালনে একদমই নতুন তাহলে দেশি বা গিরিবাজ জাতীয় কবুতর দিয়ে শুরু করবেন। কারণ, এ জাতীয় কবুতরের রোগ জীবানু খুব কম হয়। শুরুর দিকে খামারে বেশি কবুতর না নিয়ে ৫-৬ জোড়া কবুতর দিয়ে শুরু করুন।যখন কবুতর সম্পর্কে মোটামুটি আপনার একটা অভিজ্ঞতা হবে তখন আস্তে আস্তে কবুতরের সংখ্যা বাড়াবেন।




আর কবুতর কেনার ব্যাপারে আপনাকে খুব সজাগ থাকতে হবে। আপনাকে অবশ্যই দেখে ও বুঝে রোগমুক্ত কবুতর কিনতে হবে। যদি বাজার থেকে কবুতর কিনেন তাহলে কবুতট সম্পর্কে ভালো বুঝে তাকে সংগে নিয়ে যাবেন। সবচেয়ে ভালো হয় আপনার পরিচিত বিশ্বস্ত কারো কাছ থেকে কবুতর সংগ্রহ করা।
গেলা বা দেশি কবুতর নিজেরা নিজেদের খাবার সংগ্রহ করে খেতে ভালোবাসে। তাই তারা বাড়ির আশেপাশে ঘুড়ে বেড়ায় আর এজন্যই কোনো অবস্থাতেই বাড়ির আশেপাশ থেকে কবুতর কিনবেন না। কাছাকাছি জায়গা থেকে কবুতর কিনলে কবুতর আগের বাড়িতে চলে যাওয়ার আশংকা থাকে। এজন্য নিজ থানার বাইরে থেকে কবুতর কিনতে হবে। নবীন দেখে কবুতর কিনবেন। কোনো অবস্থাতেই বেশি বয়সের কবুতর কিনবেন না। সবচেয়ে ভালো হয় বাচ্চা কবুতর দিয়ে শুরু করলে। নির্ভরযোগ্য সূত্র ছাড়া কোনো জায়গা থেকে কবুতর কিমবেন না। মনে রাখবেন সমস্যা ছাড়া জেড়াসহ কবুতর বাজারে খুব কম মানুষই বিক্রি করে। এজন্য সবচেয়ে ভালো হয় জোড়াবিহীন কবুতর কিনে নিজে জোরা দিয়ে নেওয়া।
আজকে এ পর্যন্তই। আশা করি কবুতরের বাসস্থান ও কবুতর নির্বাচন এ বিষয়গুলো আপনারা বুঝতে পারছেন। ২য় পর্বে কবুতর পালন পদ্ধতি, বাড়ি চেনানো এবং কবুতরের খাবার নিয়ে আলোচনা করবো।

=>কবুতর পালনে প্রাথমিক ধারণা- ২য় পর্ব (দেখতে এখানে ক্লিক করুন)

এই পোস্ট আপনাদের উপকারে আসলে একটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন। ধন্যবাদ...

Check Also

নতুন ও পুরাতন কবুতর পালকদের এই ১৪ টি বিষয় মানতেই হবে

নতুন ও পুরাতন কবুতর পালকদের এই ১৪ টি বিষয় মানতেই হবে

আপনারা যারা কবুতর পালন করেন অথবা কবুতর পালন করা শুরু করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আজকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *