শুক্রবার , সেপ্টেম্বর ২৪ ২০২১
Home / কবুতরের যত্ন / কবুতরের পানিশূন্যতা/DEHYDRATION
কবুতরের পানিশূন্যতা/DEHYDRATION
কবুতরের পানিশূন্যতা/DEHYDRATION

কবুতরের পানিশূন্যতা/DEHYDRATION

পানিশূন্যতা (Dehydration) পাখির দ্রুততম মৃত্যুর অন্যতম একটি কারন। এই সমস্যা তাড়াতাড়ি সমাধান করা কঠিন এবং পাখি যদি খুব বেশি সময় এই অবস্থাই থাকে তাহলে আরও সুস্থ করে তোলা কঠিন হয়ে যায়। পানি ছাড়া সূর্যের আলোর মধ্যে কয়েক ঘন্টা থাকা মানে কবুতরের নিশ্চিত মৃত্যু।

সম্ভাব্য সর্বোত্তম সমাধান খুব মূল্যবান যদি রক্তের মধ্যে জলের dehydration এড়ানো হয়। আসুন দেখি কিভাবে এই রোগটাকে সহজে প্রতিরোধ করা যায়। আপনি dehydration প্রতিরোধে কয়েকটি সহজ ধাপ গ্রহণ করে শুরু করতে পারেন।

সবসময় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে হবে। আপনি যখন আপনার খামারে আসেন তখন আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল পানির পাত্রটিকে নিয়মিত পরিষ্কার করে জলপূর্ণ করা।

গরম আবহাওয়ায় বেশ কয়েকবার এরূপ জল ভর্তি করা প্রয়োজন, এবং এটা করতে যদি আপনার সময় না থাকে তবে অধিক পানি ধারণকারী পাত্র ক্রয় করে অথবা একটি অতিরিক্ত পাত্র যোগ করতে হবে । এভাবে আপনি নিজেকে কবুতরের বীয়োগ বিষাদ থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারেন।

পানি এমন স্থান এ রাখুন যেখান থেকে কবুতর সহজে পানি পান করতে পারে। পানি একটু উচ্চতাই রাখুন তা না হলে পানিতে পায়খানা করতে পারে। আর তা হলে আপনাকে জলদি পানি পরিবর্তন করতে হবে। পানি এমন স্থান এ রাখতে হবে যেন পা বা ডাণা লেগে পাত্রটি ঊল্টে না যায়।

👉বিশেষভাবে পাখির জন্য তৈরি ইলেক্ট্রোলাইট / ভিটামিন প্যাকেট (প্যাকেট নির্দেশ অনুসরণ করুন) ব্যাবহার করা যেতে পারে।
👉লিটার প্রতি দুই চামচ (অথবা আরও বেশি বা কম প্রয়োজন উপর নির্ভর করে) হারে পানীয় জল এর সাথে গ্লুকোজ মিশিয়ে দিতে পারেন।

👉যদি জল সম্ভব Aloe-Vera জেল 1 পাতা 1 লিটার (জলের সঙ্গে জেল এর মিশ্রণ). এটি একটি ভাল ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ সম্পূরক হিসাবে কাজ করে ও dehydration থেকে আপনার পাখিকে রক্ষা করবে, যা প্রকৃতি থেকে একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।
👉ভিটামিন C দিতে হবে, নিয়মিত বিশেষ করে এই গরমে।
👉গোসল করাতে হবে, যাতে পানিশূন্যতা কিছুটা উন্নতি হয়।

Dehydration এর লক্ষণসমূহ :

🔷dehydration পাখা দুপাশে ঝুলে যাওয়া আর এটাই হল প্রথম সতর্কবার্তা ।
মুখের পাতা ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া সবসময় dehydration নির্দেশ করেনা। মনে রাখবেন, এটা আপনার পাখি অসুস্থ অর্থ হতে পারে। আপনি উপসর্গের আরও পরীক্ষার মাধ্যমে অসুস্থতা বা dehydration থেকে আলাদা করতে পারেন।

👉শ্বাস প্রশ্বাস ভারী হয়ে ওঠে।

👉কবুতরের ডায়রিয়া দেখা দিবে।

👉যদি আপনি আস্তে পেছনে চামড়া ধরে টানেন তাহলে অনেক ঢিলা মনে হবে।
👉অল্পদিন ডায়রিয়া পরে, পাখির ঝিমানি, নড়বড়ে বা এমনকি সম্পূর্ণভাবে uncreative পরিণত হবে।
👉যদি dehydration বেশি হয় তাহলে পাখির খিঁচুনি হতে পারে।

এ ব্যপারে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে কিছুদিন পরেই মৃত্যু হয়।
সুসংবাদ হল, যদি ঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা দেওয়া যায় তাহলে অনেক পাখি এই অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠে এবং ধীরে ধীরে তাদের নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা ফিরে পায়।

এই পোস্ট আপনাদের উপকারে আসলে একটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন। ধন্যবাদ...

Check Also

গরমে কবুতরের যত্নে ১৩ টি করণীয় কাজ

গরমে কবুতরের যত্নে ১৩ টি করণীয় কাজ

অনেক কবুতর পালক মনে করেন গরমে কবুতরের সমস্যা হয়না, শুধু শীতেই হয়। যা ভুল ধারনা। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *